বিলিরিকরথ
( বিলিরিক ধারা চার )


ঠাকুর বিশ্বরাজ গোস্বামী


চলে গেছে বহু দিন, কালিমাটি দিয়ে যায়,
ঢলে গেছে আয়ূরবি , যেতে হবে ওঠে না'য়,
চলে গেছে আজ বেলা,
বলে মন ছাড়ো খেলা,  
বেয়ে গেলে শুধু ভেলা, জলে দেখো আছে অরি
নেয়ে হয়ে ছোট খালে, ভুলে ভুলে ভাঙি তরী,


সেই ভোরে ঘরে ছিলো, গলা ভলা বীজ ধান,
নেই আর তার কিছু, ঝরে দুই চোখে বান,
যারা সাথী দিন ভর,
তারা ভাবে আজ পর,
দূরে সরে মারে শর, হারা হই মূল মুূলে,
ঘুরে মরি আজ একা, সুখ আশে তরী খুলে।


বেলা গেছে দেখি পাটে, রবিটাকে খাবে রাত,
ভেলা দেখি বেয়ে আসে, যমকালো দু'টি হাত,
পারে আয় শুধু  ডাকে,
ঠারেঠারে ঝাকে ঝকে,
ভুলে গেছি আমি  তাকে, মারে তাই অরি ছয়,
খুলে গেছে মোহবেড়ি, আর কোনো নেই ভয়।


আজ একা নিরুপায়, সাথী নেই শেষবেলা,
কাজ শেষ খালি হাতে, পারে যেতে বাধা মেলা,
শতশত ঝরে ফুল,
যত খেলা সব ভুল,
নেই আজ আদি মূল, হত হবো মন বলে  
খেই হারা জীবনটা, বিলিরিকরথে চলে।