বৈরাগ্য
- উজ্জ্বল সরদার আর্য


             কি দ্বারা গঠিত তোমার ঐ'অন্তর ধাম ?
                     সুখ-দুঃখ, আশা-নৈরাশ্যে ,
                        হয়'না যে নত অন্তর্যম। 
                  তবে তোমার অন্তরে কি নেই
                   বিচার-বিবেচনা'র অনুক্ষণ?
            অপমান, লাঞ্ছনায় ক্ষত-বিক্ষত হয়  
                       জানি সকলের প্রাণ।
           তবে কেন পারো'না আমাদের মত হতে?
         প্রবঞ্চক’ প্রতিনিয়ত  করে তোমারে ক্ষত
                   এবার তো জাগো লড়তে-
                       করতে হবে বিচার,
         আঘাত করলে শাস্তি দিতে পারো না তার,
                 তবে তোমার এ'কেমন অন্তর?


          অভাব, অনাহার, কঠোর নিন্দ্রাহীন নক্তে
              জঙ্গিরা যজ্ঞ করছে তোমার রক্তে।
                      তবুও তুমি আঁচল তুলে
          উড়িয়ে দিয়েছো মস্তকে আপন-পর ভুলে।
              এতে কি প্রাপ্ত করে তোমার  অন্তর?
                  প্রেম নিবেদনে তুমি অবান্তর। 
           আজ সকল অন্তরে কেবল দ্বন্দ্ব, আড়ি, 
            তোমার অন্তরে ভালোবাসায় ছড়াছড়ি।


            জীবনের বিনিময়ে এঁকেছ কত ছবি,
                    তুমি অমর হে অটবি-
                  নেই তোমার অহংকার, 
        বিদ্রোহ বদলে বিদ্রোহ করো না কোন কলহ
               শুধু হও অন্যায় অত্যাচারে
                      অপরের ভাগীদার।
                দুর্যোধন, কালিয়র রাজ্যে
         বিষ সব পান করলে নিজ অন্তরে,
               ভালোবাসার পুষ্প ফুটিয়ে 
                 অমৃত-সুগন্ধ-ছড়িয়ে
      বিদায় নিলে’ ঘুমালে রাতের অন্ধকারে।



উজ্জ্বল সরদার আর্য
রচনাকাল ১৬ ওই জুন ২০১৬ সাল...
রাত ১২.২৭ মিনিট
দাকোপ খুলনা বাংলাদেশ।