নতুন সকালের অপেক্ষা
✍-উজ্জ্বল সরদার আর্য


অমর-অন্তরীক্ষে জ্বলে থাকা সূর্য
সহসা অস্তমিত হলো,
দিগন্ত ছুঁয়ে অন্ধকার দিচ্ছে হাতছানি
স্বদেশে নিস্তব্ধতা-শূন্যতা প্রবেশ করলো।
ভয়ে-ভিতু প্রাণ খুঁজছে আশ্রয়,
বিশ্রামের আশায়-গৃহে এলো পাখির দল!
আর এমন ক্ষণে শত্রুর আগমনে,
মায়ের বুকে বেধেছে কলহ-কোলাহল।


নিদ্রিত জনতা দিকভ্রষ্ট এখন
বাঁচার আশায় ছুটছে,
সঙ্গহীন-স্বজন হারা হয়েছে সকলে
বুলেট বিদ্ধ বুকে মরছে।
এখন দেশ জুড়ে ভয়ানক চিৎকার
আর বোমা-বিস্ফারণ শব্দ যাচ্ছে শোনা,
আগুনের শিখা আকাশ ছুঁয়েছে
দগ্ধ ভূমি-দগ্ধ মা-করছে বেদনায় কান্না।


প্রভাত দেখা হলো না আর
এই রজনী হয় না শেষ,
সূর্য আছে মুখ লুকিয়ে অন্তরালে
ওরা ক্ষতবিক্ষত-বিধ্বংস করেছে দেশ।
ঝরে গেলো কত তাজা প্রাণ
এই রাতে-ওদের সংঘাতে,
আর ফুটবে না ফুল- জ্বলবে না আলো
কে যাবে-যুদ্ধে আজ লড়তে?


ওরা চেয়েছে রাজ্য-নিয়েছে প্রাণ
গড়েছে লাশের স্তূপ কত,
ভেবেছে দুর্বল করছে তাই অত্যাচার
রক্ত স্রোত প্রবাহিত হচ্ছে অবিরত।
কিন্তু এভাবে অকালে জীবন হারিয়ে
পলায়ন করে বাঁচবো কতদিন?
তাই এবার জাগ্রত হতে হবে সকলের
শত্রু দমন করে হতে হবে স্বাধীন।



✍উজ্জ্বল সরদার আর্য
রচনাকাল, ১৭ অক্টোবর ২০২০ সাল,
বাংলা- ৩১ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, শনিবার।
দাকোপ খুলনা, বাংলাদেশ।