অনসূয়া
- উজ্জ্বল সরদার আর্য


                          হে অনসূয়া....!!
             তুমি হয়েছো আজ কার জায়া ?
            আমার তৃষিত অন্তর আকুল  হয়
                  হলো না তোমায় পাওয়া।
             কত ডেকেছি তোমায় বারে-বারে
                          আমার নিধুবনে,
         তুমি নি রবে চলে গেলে আমারে ফেলে
                             এই যৌবনে।
      
       আজ কোন অরণ্য মাঝে বনলতা  সাঁজে
                     সেজেছো ওগো তুমি?
             তোমার বিহনে বিরহে ডুবি আমি-
                     স্মরণ করি অশ্রুজলে,
        তুমি একবার এসে আমায় যাও গো ছুঁয়ে
   আমি আছি ঘাসের উপর বিন্দু বিন্দু শিশির হয়ে
                        পড়বো পদতলে।

           অনসূয়া, আজ তুমি আমার ডাকে
                        কেন দাওনা সাড়া?
                শুকিয়েছে সব ফুলের তাড়া-
                         আছি অপেক্ষায়,
                মন বলে তুমি আসবে ফিরে
                   পথ চলবে হাতটি ধরে
                         গোধূলি বেলায়।
    
         আজ তোমার অনুসরণে রক্তাক্ত চরণে
                   এসেছি দিগন্ত পেরিয়ে,
                     প্রাণ দিয়েছি বিলিয়ে -
                        চেয়েছি তোমারে
            তুমি আড়ালে লুকিয়ে যাতনা ভরিয়ে
                     বিদায় দিলে আমারে।
            
               তবে কি করে হবে গো আর
                     আমার বেঁচে থাকা?
                হৃদয়ে আছে তোমায় আঁকা-
                   তবুও তোমায় পেলাম না
          ব্যর্থতা বুকে কি হবে আর বেঁচে থেকে
                 ওই প্রেমের প্রদীপ জ্বলে না।



উজ্জ্বল সরদার আর্য
রচনাকাল ২ ওই ফেব্রুয়ারি ২০১৫ সাল।
বিকাল ৫.৩০ মিনিট
মধ্য দাকোপ,দাকোপ খুলনা, বাংলাদেশ।