স্বাধীন-সঙ্গীতে জাগুক প্রাণ
  ✍-উজ্জ্বল সরদার আর্য


দুঃখের দিন এসেছে আজ,
স্বদেশ বড়ো অসহায়!
রুক্ষ-তৃষিত-ক্ষত এই ভূমি,
রক্তে-রঞ্জিত হচ্ছে ক্ষয়।
শত্রুর জয় হয়েছে ওরে,
হচ্ছি আমরা নির্যাতন!
খাদ্য-বস্ত্র-গৃহ হারিয়েছি,
পথে-পথে ঘুরে মরি এখন।


দিন-দুপুরে আজ হচ্ছে খুন,
প্রতিবাদ করে না কেউ ভয়ে!
আপন হৃদয় বাঁচাবে বলে,
আছে অন্তরালে মুখ লুকিয়ে।
নারী আজ হয়েছে দাসী,
প্রাণ দিয়ে করছে সেবা!
রক্ত-মাংস-যৌন লালসায়,
উলঙ্গ বুকে ওরা মারছে থাবা।


তবু শত আঘাত সয়ে যায়,
ভিতু-দুর্বল-মূর্খ জনতা!
চরণ ধরে মিনতি করে,
কিন্তু ভাগ্যে মেলে ব্যর্থতা।
ওরা শান্তি চায় না,যুদ্ধ চায়-
চায় রক্ত-মাংস-প্রাণ!
রাজ্য-সম্পদ হরণ করেছে সব,
আজ কে গাইবে মুক্তির গান?


মায়ের মুখে আর হাসি নেই,
দহনে-দগ্ধ হওয়া ক্ষত চিহ্ন দেখি!
বিধ্বংস বুকে বেদনা জাগে,
বীর সন্ধানে অশ্রু ঝরায় আঁখি।
শুধু আর্তনাদ চিৎকার শুনি,
চতুর্দিকে হচ্ছে ভয়াবহ কম্পন!
বাঁচাও--বাঁচাও হে-বীর,
মায়ের বুকে কত আর জ্বলবে দহন?


রক্তের প্লাবন চলছে এখন,
দেশ জুড়ে করছে ওরা অত্যাচার!
সম্মুখে শত-শত লাশ পড়ে আছে,
হয়েছি শিয়াল-কুকুরের খাদ্য এবার।
ওগো জাগো-জাগো হে-বীর,
সময় হয়েছে প্রতিবাদ-প্রতিশোধের!
মায়ের-মুক্তির কথা চিন্তা করো,
বেজে উঠুক সঙ্গীত বিদ্রোহের।


✍-উজ্জ্বল সরদার আর্য
রচনাকাল, ১৬ অক্টোবর ২০২০ সাল,
বাংলা- ৩০ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, শুক্রবার।
দাকোপ খুলনা, বাংলাদেশ।