তুমি চলে গেলে সোমবার রাত এ । আমার সেই সোমবারের সকাল এ ফিরতে ইচ্ছে করে।
হেমন্ত শুরু হয়ে ছিল, শরত এর কাশফুল গুলি ধুসর হয়ে জানান দিচ্ছিল বিদায় বারতা,
তুমি মিলিয়ে গেলে শরত এর কাশফুলের মাঝে, আমাকে হেমন্তের উষ্ণতা বঞ্চিত করে একা ফেলে।
তুমি কথা দিয়েছিলে, থাকবে, আমাকে দেখবে, আগলে রাখবে বুড়ো বয়স এ শিশুর মত করে।
কথা গুলি (যা আমি ধারণ করেছি কিছু না বুঝে) হারিয়ে গেল তোমার সাথে সাথে।
আমি বিষণ্ণতায় দিন গুনি, মাস গুনি, আর ভাবি এভাবে কত বছর গুনতে হবে আমায় ?
কি এমন দোষ ছিল আমার ? আমি কি তোমায় বুঝিনি ? নাকি আমাকে তুমি বুঝতে দাও নি ?
আমি তো ভালবেসে অন্ধ ছিলাম, তোমার মাঝে ই ডুবে ছিলাম, দিন রাত সকাল দুপুর।


আমার ভাল লাগেনা তোমাকে ছাড়া, ভাল লাগেনা চির চেনা কাজগুলি, যা আগে ভাল লাগতো
তোমার অপেক্ষায় কাটে সময়, যদি ও জানি আসবে না তুমি এ চির চেনা ধরায় !
তারপর ও ভাবতে ভাল লাগে, তুমি আসবে সাদা রং এর শাড়িতে , লাল টিপ এ
কোন এক ফাগুনের সকালে, তুমি আসবে, আবার সেই কপট রাগ এ চুল ধরে টানাটানি
তারপর ! পাখির পালক এ মুখ গুঁজবো আমি!প্রান ভরে নিব তব চুল এর ঘ্রান।
তুমি আসবে না, না ফেরার দেশে চলে গেছ, যেথায় আমাকে এসে দেখা করতে হবে।


৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০
মিরপুর, ঢাকা