কবিতা- স্মৃতির পাতা থেকে
কলমঃ-ইয়াসিন সেপাই/


ঘুমিয়ে গেছে পিতা আমার,বাগান ভরা ফুলের সারিতে,
করবে কে আর যতন ওগো,রং বে রঙের ফুল গুলিকে,
অনাদরে যাবে ঝরে,দিনের শেষে অযত্নে ফুল গুলি যে,
স্বপ্ন গুলো রূপ পাবে না,পিতা হারা সন্তান তোমার যে।


পিতা আমার আকাশ সমান,কম্পিত বুক, যখন খাটিয়া কাঁধে তোমায় নিয়ে,
দুনিয়া শুধু মিছে "বাসা,পিতার মত নেই গো মায়াজাল তোমায় হারিয়ে বুঝলাম যে.!
ধুলো পথে, কাঁটা পায়ে,বাবার আদর বড্ড মনে পড়ে, তোমার নিথর শরীর দেখে,
দুরন্ত মনে ছুটে আসা বুকে,বাবার আদর আর পাবো না চিরতরে হারিয়ে ফেললাম যে.!


মাঠের পরে মাঠ হতে,বাবার ডাক আর যাবেনা সোনা, আয় খোকা ঘরে আয়রে..
অশ্রু বারি গড়িয়ে চোখে,বাবা তুমি গেল চোলে অনেক দূরে, শেষ বিকেলে আপনজন-কে ছেড়ে,
বাবার লাশে কাফন জড়িয়ে, সুরমা চোখে,অতর গোলাপ সুগন্ধি মাখিয়ে,
বাবা তুমি শ্রেষ্ঠ বাবা,সন্তানেরা সিক্ত চোখে পিতৃ হারা হয়ে তোমায় দেখছে সবাই নয়ন ভরে,


বাবা তোমায় মাটির ঘরে,শুইয়ে দিলাম মাটির- বিছানাতে, প্রিয়জনেরা মিলে,
সওয়াল জবাব নিরসন হোক,রবের কাছে চায় দোওয়া, দুহাত তুলে তোমার সন্তানেরা মিলে,
জান্নাত তোমার ঋদ্ধি হোক,সন্তানের দুহাত তোমার জন্য, মাগফেরাতে সদা সময়ে,
বাবার মত আর হবে না কেউ,বুঝলাম শেষে, মুষ্টি ভরে মাটি যখন রাখলাম তোমার বুকে.!!


চল্লিশ কদম সমাধি ছেড়ে যেতে চায়না মন,বাবা তোমায় একলা ঘরে শুইয়ে রেখে,
বাবা তুমি রোজ বিহানে দেখা দিও, ঘুমের দেশে স্বপ্নে আমার নয়ন ভরে,
সকাল শেষে দিনের শেষে,বাবা আমার রোজ সকালে ঘুমের দেশে দেখাদেয় এসে,
বাবা আমার তোমায় খুব, পড়ে মনে, একলা যখন ঘরে থাকি বসে।।
__________রচনাকাল- 05/08/2022