দেয়াশলাই কাঠিতে সামান্য বারুদ
জ্বালিয়ে দেয় প্রলয়ংকরী আগুন।
প্রতিকূল মাটিতে পুতে রাখা বীজ
মহিরূহ হয়ে রাঙিয়ে দেয় ফাগুন।


উৎগত  হয়, বেড়ে  ওঠে   আগাছা ঠেলে
একটা  মেঘে ঢাকা  সূর্য
আলো দিয়ে যায় মেঘের আবরন ছিঁড়ে ফেলে।
একটা  খাপ খোলা তলোয়ার
মরিচা পড়লেও থাকে  খুর-ধার।
বাঁধ ভাঙ্গা নদী
উত্তাল প্লাবনে ভাসিয়ে নেয় পারাবার।


সে  চির নতুনের বার্তাবহ,
নিজে থেকে নিঃস্ব
জয় করে যত লোভ- লালসা- মোহ
সৃষ্টি সুখের উল্লাসে  মাতায় গোটা বিশ্ব।
সব তারা ছাড়িয়ে, সব গ্রহ
ধ্রুব তারার মত  জ্বলে   জ্বল জ্বল।
পাশ কেটে যায় ক্ষুদ্র স্বার্থের সংঘাত
তীরে এসে লাগে দুঃখের অভিঘাত
তবু সে সাধনায়  অবিচল।
প্রতিভা মানেই  হয়ত
অপরিসীম বেদনা সইবার মনোবল।