লাল দল নীল দল মুখোমুখি
শুনেছি এটা ভাগ্য পরিবর্তনের খেলা
কার ভাগ্য পরিবর্তন তা কে জানে!
হতবুদ্ধি দর্শকদের মুখে নেই রা
আমিও এক নীরব দর্শক।
খেলার নিয়ম আছে, তবু কেউ মানছে না
চলছে মাঠ দখলের প্রতিযোগীতা।
বিতৃষ্ণায় মুখ ফেরালাম
চোখ পড়লো প্রতিবন্দী মত দেখতে এক যুবকের প্রতি
অল্পক্ষণ পর পর খুক খুক কাসছে,
এই বয়সে শরীর এমন হবার কথা নয়,
হয়ত ভুল শাসনেই এমন দশা!


হঠাৎ হৈ চৈ শুনে আবার দৃষ্টি দিলাম মাঠে
দেখলাম খেলোয়াড় বদল না হয়ে রেফারী বদল হয়েছে-
রেফারীর জার্সি হবার কথা কালো
কিন্তু তার পরনে লাল রঙের জার্সি।
নতুন রেফারী মাঠে এসেই
অল্প অজুহাতে নীল দলের খেলোয়ারদের একটার পর একটা
হলুদ কার্ড আর লাল কার্ড দেখিয়ে যেতে লাগলো।
না আর খেলা দেখে কোন লাভ নেই,
মনে হচ্ছে একটি দলকে জোর করে হারিয়ে দেয়া হবে...


আবার মুখ ঘুরিয়ে দেখি- সেই উদভ্রান্ত মত ছেলেটা
পকেট থেকে একটা ইনহেলার বের করে নিঃশ্বাস নেবার চেষ্টা করছে
ইনহেলার নেবার কায়দাটাও মনে হচ্ছে ওর জানা নেই।
নিশ্বাস বন্ধ হয়ে কি মরে যাবে শেষে?
এবার মুখ ঘুরিয়ে তাই আকাশের দিকেই তাকালাম
পেছন থেকে কে যেন বলে উঠলো-
সাবাশ বাংলাদেশ!
সাবাশ গনতন্ত্র!