ফিরে ফিরে আসে সেই ফাল্গুন
কৃষ্ণচূড়ার ডালে লালচে আগুন
      শিমুল পরাগ থেকে উড়ে যায় রেনু।
পলাশের বন রঙেতে রাঙানো
বেজে ওঠে গান ঘুম ভাঙ্গানো
      যমুনার কূলে বাজে রাখালিয়া বেণু।
রাঙ্গা মেঘগুলো যেন এলো চুল
বনে বাগিচায় ফুটে আছে ফুল
      দোলা দেয় দক্ষিনা হিমেল হাওয়া।
বাসন্তী রঙে সেজেছে শহর
উৎসব ঘেরা ঝলমল প্রহর
      প্রাণ মাতানো আনন্দ গান গাওয়া।


মনের বনেতে আসে না বসন্ত
যত দূর দেখি ধূসর দিগন্ত
         আকাশ জুড়ে চির মেঘলা শ্রাবণ।
জানি এ বসন্ত ক্ষণিকের মায়া
জলের উপর ও পাড়ের ছায়া
         হাসিগান আর ফুলের ডালায় বরণ।
চলে যাবে প্রিয় ঝরে যাবে ফুল
গান গাইবে না কোন বুলবুল
       কেউ করবে না নিভৃতে তোমায় স্মরণ।