কবি, যেদিন তোমার এই লিখনী থেমে যাবে
থাকবে পড়ে রিক্ত পাতায় কবিতার আখর গুলি
কেউ কি সেদিন আঁচল ভরে কুড়িয়ে নেবে?
না কি সবই থাকবে পড়ে, অবহেলার পথের ধূলি।


কেউ কি তোমার কথা নিয়ে গান বানাবে?
হৃদয় দিয়ে সুর বসিয়ে গাইবে আপন মনে?
সামান্য এই লিখন তোমার কি বা দেবে
পান্ডুলিপি মৃতের মত, নিথর এই ঘরের কোনে।


জীর্ন মলিন শব্দগুলি বিজন পথের ঝরা পাতা
কবি তোমার মনের কথা কাঁদবে চুপে অনাদরে
ধূলায় ধূলায় রঙ হারাবে তুচ্ছ তোমার লেখার খাতা
পড়বে না কেউ তোমার কথা স্মরণ করে।


না অন্তরা, না সঞ্চারী, শেষ হবে না কোন কথা
শেষ গানের মত তুমিও সেদিন হারিয়ে যাবে
মনের কথা থাকবে মনেই, লিখলে যা সব অযথা
কবি তোমার শূন্য জগত কল্পনা আর শুধুই ভাবে।


সত্যি যদি কবি হতে লোকে তোমার শুনতো কথা
দিগ্বিবিদিকে তোমার নামও ছড়িয়ে যেত বিশ্ব জুড়ে
হয়ত তুমি হারিয়ে গেলেও থাকত কথার আকুলতা
তোমারই গান ছড়িয়ে যেত মুখে মুখে বহু দূরে।।