১০৩.
কবি সৈকত অধিকারী "ফিরে দেখা" কবিতায় অনেক প্রেমিক মানুষের মনের অনুভবকে ছুঁতে পেরেছেন l
একটা বয়সে মনে প্রেমের জোয়ার আসে l সে প্রেম reciprocate হয় l অনেক স্বপ্নের জাল বোনা হয় মনে মনে l কিন্তু সব প্রেম পূর্ণতা পায় না, সফল হয় না l জীবন চলে নিজের ছন্দে l এই ছন্দ রক্ষা করতে গিয়ে, প্রেমের পথে কখন যে ছন্দ পতন হয়, বোঝা যায় না l কিন্তু প্রথম প্রেমের স্মৃতিকে ভোলা সম্ভব নয় l মনের মনিকোঠায় সে নিজের জায়গা করে রাখে l সময়ে সময়ে, বিশেষ মুহূর্তগুলিতে অতীত প্রেমের স্মৃতি ভেসে ওঠে এবং মনকে ভাববিহ্বল করে তোলে l
অতীত প্রেমের এই অনুভব ডায়েরীর পাতায় লিপিবদ্ধ থাকে l সে এক স্মৃতির আকর l অনেক ডিটেইলসকে হারাতে দেয় না l পৌনঃপুনিকভাবে স্মৃতির ভান্ডারে আক্রমণ করে l
একটা পর্ব আসে জীবনে যখন একটা সংশয় মনকে গ্রাস করে l প্রিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক টিকবে কি টিকবে না, প্রেম মুল্য পাবে কি পাবে না, এই দোলাচলে মন আশঙ্কিত হয়, সিগারেটের ধুঁয়া ওড়ে, মনের দ্বন্দ্ব মেটে না l সময় এগিয়ে চলে তার নিজের নিয়মে l সম্পর্ক নিকট থেকে দূরে যায় l
অনেক দিন পর, কোনো মুহূর্তে, অতীত ভেসে ওঠে l প্রিয়ার জন্য বিশেষ করে লেখা কবিতার কিছু কলি মনে পড়ে l প্রেমের মুহূর্তে হওয়া অনন্ত সেই কথাগুলো, সেই প্রথম সাক্ষাতের মুহূর্ত, অষ্টমীর রাতে হাত ধরে পথচলা, হলদি নদীর পাড়ে পড়ন্ত সূর্যের সোনালী আভায় প্রিয়ার হাসি, ফিসফিস করে কানে প্রেম নিবেদন - সব স্মৃতিপটে ভেসে ওঠে l যেন এই সেদিনের ঘটনা l
কিন্তু ভবি ভুলবার নয় l যে সিগারেট-এর টানে প্রেমের শুরু, সেই সিগারেট - এর ছ্যাঁকাতেই সম্বিত ফেরে l সব ফাঁকি বলে মনে হয় l মনে আসে, তার প্রিয়া এখন অন্যের জীবনসঙ্গী l তার এবং তার প্রিয়ার মাঝে এখন অন্য কোনো পুরুষ দাঁড়িয়ে আছে l বাস্তবকে মেনে নিতে হয় l সত্যকে স্বীকার করে নেয়া ছাড়া কোনো উপায় থাকে না l


কবি সৈকত অধিকারী মহাশয়কে সুন্দর কবিতাটির জন্য অভিনন্দন l