আমি উত্তর দিগন্তরেখার
হিমালয় পর্বতের মত হৃদপিন্ডহীন স্তব্ধ মানব।
যে স্তব্ধ মানব বয়ে চলি
দুঃখ কষ্টের এক ভয়ঙ্করী ঝড়।


আমি পূর্ব দিগন্তরেখার
রক্তিম লাল সূর্যের মত জলন্ত অগ্নিকুণ্ড।
যে অগ্নিকুণ্ড একটি সাজানো স্বপ্নকে
জ্বেলেপুড়ে দাহ করে দিতে চায়।


আমি দক্ষিণ দিগন্তরেখার
বঙ্গোপসাগরের মত উত্তাল ডেউ।
যে ডেউ লণ্ডভণ্ড করে দিতে চায় সবকিছু
কেড়ে নিতে চায় আনন্দ হাসি।


আমি পশ্চিম দিগন্তরেখার
জলশূন্য মরুভূমির গহীন মরীচিকা।
যে মরীচিকায় লুকিয়ে থাকে সর্বনাশা চুরাবালি।
যে চুরাবালি ডুবিয়ে দিতে চায় সকল সুখ।


জানি না কেন এমন হল
সব কিছু হয়ে গেল এলোমেলো।
আমার বুক ভরা স্বপ্ন আর ভালবাসার
প্রতিদানে সব পুড়ে হল ছারখার।