তোমার দুই ভুরুর মাঝে কালো টিপের সূর্যোদয়
দিশা দিয়েছিলো , তখনও জীবন কাব্যময়।


ছায়া শালিকের মায়াভরা সেই শিস ধ্বনি
বিবাগী দুপুরে অলোক কথার গান শুনি।


বলেছিলে কবে আবার আসবো , হবে দেখা
সেদিন স্মরণে ধূসর ধুলোর ম্লান রেখা।


কতদিন আগে বসেছিলে পাশে , হেসেছিলে
সন্ধ্যা আলোয় নিবিড় করুণ চোখ তুলে।


কথা ছিল, হাতে হাত রেখে দূর পাড়ি
ভালোবাসাবাসি , অঙ্গীকারের বাড়াবাড়ি।


কথা ছিল যাবো আকাশ যেখানে অপেক্ষায়
অরণ্য জাগে , একলা মেঘের বিবশতায়।


কথা ছিল সুখে নতুন সৃষ্টি, কাব্য পথ
গোলাপ সুবাস , প্রকাশিত রূপ , শ্বেত কপোত।


তুমি আজ যেন জোনাকির আলো দূর বনে
জ্বলে ওঠে শুধু আবার নেভার কাল গুনে ।