আজীবন ছুটতে হয়
কখনও অগোছালো, কখনও...
এখানে থামতে মানা
গ্রীষ্ম— বসন্ত— বর্ষা— শীত
ছুট ছুট রব চারিদিক ।


আগামী সূর্যের রংকরা স্বপ্ন গুলো
সীমাবদ্ধ খাঁচায় ডানা ঝাঁপটায় ।
আমি কি জানি—
অত গুলো কথা শুধুই কারসাজি !
গন্তব্যে পৌঁছে যাব একদিন
নোনা মাটির বুকে— কলঙ্কিত কবর ।


শুধু জেনে রেখো— ‘হে মহা-জীবন ।‘
আর একটা সকালের প্রত্যাশায়
যখন উঠে দাঁড়িয়েছিলাম
চল ঘুমিয়ে পড়ি— বলে
হাজার স্বপ্নের আস্কারায়, চোখ বন্ধ করতেই
চক্রান্তের শিকার ।


চারিদিকে মায়াময় ধন্ধের জাল
অথবা অতি বিষাক্ত বৃক্ষের ফল
ডুবে যায় জীবন
নিভে যায়— চকমকি পাথর ।