দুষ্টু মেয়ের মিষ্টি হাসি
একটি হাসির দেশ,
এই হাসিকে ভালোবাসি
হয়ে নিরুদ্দেশ।
দু'টি ঠোটের ফাঁকে পাওয়া
এক চিলতে শশী
স্বর্গ হতে জ্যোতির হাওয়া
পূর্নিমা হয় নীশি।


দন্ত মূলে মুক্তো ঝরে
মুখে হাসির নহর,
এই হাসিকেই সঙ্গী করে
কাটাতে চাই প্রহর।
হাসির সাথে চঞ্চলতা
দুষ্টুমিতে ভরা,
নব পল্লব নব লতা
হয়ে পত্র ঝরা।


এক জোড়া দাঁতের পাটি
ঈশ্বরেরই দান,
সন্দেহ নেই অনেক খাঁটি
সদা অম্লান।
মায়া ভরা একটি মুখ
মেঘ কালো চুল,
হরিণীর মতো চোখ
সাদা গোলাপ ফুল।


হাসিতেই হয়ে যায়
গোমরা মুখে স্নান,
মরুভূমি পানি পায়
জীবন্ত এক প্রাণ।
অধিপতির কাছে আমার
কোনো চাওয়া নাই,
মরণকালে যেনো তার
হাসি দেখতে পাই।