হে স্বাধীন স্বদেশ আমার
তোমার ঐ আকাশের সূর্য আলো দেয় কারে।
যারা মহাকাল ধরে চিরবঞ্চিত জীবন জীর্ণতার আঁধারে।
দুঃখের মানচিত্রে শুধু ধনীদের হাসিমুখ তোমার সংবিধান আমার ভেঙেছে পোড়া বুক।
আমাকে এখনো কুড়িয়ে খেতে হয় ফেলে দেয়া  ডাস্টবিনের ঐ পঁচা খাবার।
রক্ত নদী ন'মাস তবে কী করেছে আমার?
পিচঢালা ঝকঝকে তকতকে রাস্তার মোড়ে তোমার
কাঙ্গালি কাঁদে, কাঁধে ঝোলে  ভিক্ষার ঝুলি তার।
বিংশ শতাব্দীর বঞ্চিত শ্রেণিটিকে আর কত সহ্য করতে হবে?
সেই তো মহাকালের গহ্বরে তলিয়ে যাচ্ছি
কেউ রাখেনা অনুভবে।
আমি শোষনের শিকার,এ কথা কেউ স্বীকার করেনা
হয়তোবা শোষক ভাবে এত প্রহসন তবু্ও মরেনা!
বসে বসে অস্তিত্বের অংক কষে পেলাম শেষে
আমার তরে কিছু নাই স্বাধীন স্বদেশে।
মহাকালের কপাল পোড়াদের জন্মই বুঝি আজন্ম পাপ
তাই তো কপাল জুড়ে আছে অমানিশার কালো অভিশাপ।
জয়তু মহাকালের নির্মম কালো ইতিহাস,
তোমার ঐ বিচিত্র দৃশ্যের অভিনয় করতে করতে আমি ক্লান্ত হয়ে পড়েছি।



রচনাকালঃ ৬ মার্চ ২০২১ ইং