তলাহীন ঝুড়ি
[email protected]@@


চকোরের বক্ষে আমি সঁপেছি ক্রন্দন,
খুঁজি না কষ্মিন কালে সূর্যের স্পন্দন।
বর্ণিল ভদ্রের রূপ দেখেছি যা আমি
জানেন তা অন্তর্যামী!


প্রখর রৌদ্রের ধারে কোথায় সে’ শালিকের সুর,
স্বপ্নিল আবেশ ঢেলে তৃষ্ণার্ত অন্তর
মুহূর্তে যে নিয়ে যেতো দূর থেকে আরও বহু দূর?
না পেয়ে পৌষের প্রাতে সোনা ঝরা রোদ
পারে না পাপিয়া তবু রাখতে নীড়ে চঞ্চলা সে’ বোধ!
দেখে বসন্তের বেশ,
হাঁসফাঁসে কোকিল সেও খুঁজে ফিরে
নির্লিপ্ত অধরে জাগা উঠোন বাতায়
ঘর্মাক্ত ললাটে কারো বাধ্যহীন অগোছালো কেশ!


হে সর্বগ্রাসী দ্বন্দ্বের ছন্দ নাশী ত্বরা,
উগরে দে ক্ষিতির বুকে পারিস যতো বহ্নিমান খরা!
খেয়ে নে জন্মের তরে গো-গেরাসে ঝালে মাখা মুড়ি,
অবশিষ্ট আয়ুষ্কাল দ্বিধা ভুলে আমি
বন্ধ্যা কর্তব্যের ঘাতে না হয় নীরবে
ক্লান্ত পথে টেনে যাবো আমার এই তলাহীন ঝুড়ি।


(অক্ষরবৃত্ত)
[email protected]@@
পাঁচুপুর, আত্রাই, নওগাঁ।
১৯/০৪/২০২২ইং।



@বোরহানুল ইসলাম লিটন