আমার রাস্তা হেঁটে চলে
সেথায় নেইতো কমা-দাড়ি।
আমার ফিরতি পথের ধারে
তোমার টিয়ে রঙা শাড়ি।
আমার জুতোর তলায় ফুটো
আমার চোখের তারা দুটো।
খুঁজে বেড়ায় তোমার দিশা
একটা হলদে রংয়ের বাড়ি।
যে'পথ গেছে শুধুই বেঁকে
গুচ্ছ আবছা ছায়া এঁকে।
এপথ-ওপথ খুঁজে ফিরি
আমার ঝাপসা স্মৃতি ছেঁকে।


তুমি, তুমি না-কি ছবি?
কোন কল্প লোকের দেবী!
আমি পাইনা খুঁজে আর
একটা টিয়ে রঙা শাড়ি।
তুমি হার কিংবা জয়
হটাৎ ভুলে যাওয়া ভয়।
তুমি কাব্য না-কি কবি?
না-কি স্বপ্নে দেখা ছবি।
মাথার উপর একটা চাঁদ
ভেসে চলে নির্বিবাদ।
চলে তোমার পিছুপিছু
আমার রাস্তা উঁচুনিচু।


আলোয় ভাসে আবছা মুখ
আমার আজলা ভরা দুখ।
এই পথ ফিরেনা বাড়ি
খোঁজে টিয়ে রঙা শাড়ি।


আমার রাস্তা হেঁটে চলে
সেথায় নেইতো দাড়ি-কমা।
আমার একলা পথের সাথী
একটা পুরনো চাঁদ মামা।।


©সুব্রত ব্রহ্ম
সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৯ইংঃ
ময়মনসিংহ।