সৃস্টির এই বৈচিত্র রূপ,
                    ভাবতে অবাক লাগে ;
            কোথায় স্রস্টা কোথায় দ্রষ্টা
                    কে আছে পশ্চাতে ?
      
           সুনিপুণ হাতে এঁকেছে ছবি ,
                      নিখুঁত তাহার কাজ ;
           ছোট বড় সবাই আছে ,
                      কি অপূর্ব এই তাজ ।


          এমন  শিল্পী কখনও দেখেছ ?  
                     তোমার চলার পথে ;                  
          একের সাথে অন্যের তুলনা,
                     হয় না কোন মতে ।


         আলো আঁধারের এমন খেলা ,                  
                   কে খেলিতে পারে ?
         কোথায় খুঁজে পাবে তারে ?
                    খুঁজে পাওনি যারে ।


        আকাশ বাতাস নাচছে ওরে ,
                কোন হোলির গানে ?
        কে জোগাল এতো রং ?
                কাহার প্রানের টানে ?


       অন্ধকারে আলোর ছটা ,
               ভাবতে লাগে বেশ ;
       কোন আঁধার থেকে আলোর উৎস ?
              কোথায় টানবে রেশ ?


       আমি তুমি, আমরা তোমরা ,
              সব মিলেছি হেথা ;
       আলোর পথ খুঁজতে গিয়ে-
             আঁধার পথে বাঁধা ।


         কেউ বলছে - পেয়েছিরে ,
              আলোর দিশা আমি ;
         আবার ক্ষণিক তরে আঁধার নেমে,
                লুকায়  অন্তর্যামী ।
        
          ধরি ধরি ধরতে নারি ,
                 কোথায় পাব তারে ;
          অতল থেকে অ্সীম পানে ,
                  ছুটতে হচ্ছে যারে ।


          নানান কথা, নানান ভাবনা,
                 নানান ভাবে আসে;
           বন্ধ হৃদ্‌য় অন্ধকারে,
                 মহা শূন্যে ভাসে।


           জন্ম- মৃত্যু সৃষ্টি ধারা,
                  চলছে অবিরত;
           মানুষ মোরা বিস্ময় ভারে,
                  মস্তক করি অবনত।