পরকীয়া নেশা
দেবপ্রসাদ জানা
৩০.৭.২০২১


এক অনু অরণ্য উড়ে গেল,
চোখের সামনে থেকে,গা ছমছম করে উঠল।
চোখের ভুল! এ কোন চলমান অরণ্য?
ম্যাকবেথের? ওই তো উড়ন্ত সবুজ।
চড়াই পাখির মুখে ধরা এক গুচ্ছ ঘাস।
জীবনের আভাস। বাসা বাঁধা শুরু।
অথচ মৃত্যুর আশ্চর্য এক বিষাদ প্রদাহে
সদ্যমৃতের অস্তিকলস হাতে দাঁড়িয়ে আছি,
নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করা উদ্দেশ্যে,
এবার আমার পালা - এই তো সেই স্থান,
এখানেই আসার ছিল প্রত্যেকে।
ঘুরে ঘুরে,সংসার সমুদ্রে -
ফুটো একটা নৌকায় চেপে -
সত্তর আশি বছর পর এলাম।
খোঁজটুকু নেবে না কেউ,না পূর্বপূরুষ,না উত্তর পূরুষ।
হঠাৎ নিরুদ্দেশ হয়ে গেলে,
কত ভালোবাসার কলি ফোটে মনে।
একবার ও ভাববে না,কাছের মানুষটা যে
গুরুত্বহীন।
বতর্মান ক্রমশ অতীত।
কান্না ভেজা চোখ-অশান্ত করে মৃত্যুশোক।
ভালো থেকো প্রিয়তমা,প্রেমিকা,গৃহিনী,
পরকীয়া নেশা।
আজ আমি নেই তোমার স্মৃতিতে,
তোমার ভালোবাসার মানুষ -
তলিয়ে গেল বিস্মৃতিতে।
আমার মন চঞ্চল আজও,এই শেষ গন্তব্যে।
ভুলতে পারিনি প্রেম,পরকীয়া, তোমায়,
ভালো থেকো,ভালো রেখো মন।
হয়তো দেখা হবে কোন একদিন
কোনো একসময়, এই এখানেই,শেষযাত্রায়।
থাকবে না এইক্ষণে,উড়ন্ত সবুজবন,
স্বপ্নও কিছু সফল হবে না,
জানি মিটবে না মনের সাধ,
তবু উড়ন্ত অরন্যে ব্যস্ত  হবে মন।
জীবন থেমে থাকবে না কোনোদিন।
ভালো থেকো প্রিয়তমা,প্রেম পরকীয়া নেশা।