তখনও কমে আসেনি দেখবার জোর, আমি দেখছি: রাত অনেক--দুপুরের মতো বিস্তৃত, তারও বেশি দীর্ঘ স্নায়ু-মাখা অন্তর্লীন পথ, পাশাপাশি ছড়িয়ে শারীরিক রমনীর মন, চাইনা চাইনা বললেও আমার ব‍্যর্থতার মুখে জোছনা পড়ে, আবছা ঘরে বাসনা জাগায় মাদক ফুল, রাস্তা নিভে গেছে কিছু আগে আজকের মতো যেন শায়িত চাবুক, এবার, এবার দৌড়োয় জৈব শুক্র পরমাণু ঘামের নিজ-দেশে, অবশেষে পরম চৈতন্য, আমি যাকে চিনিনা তেমন, আবেশে শিথিল হয়ে আসে প্রাচীন। তারপর প্রসারিত, জ্ঞানের মতো ঘুম ঘুম ঘুম...