তোমরা বড়াই করো
তোমাদের সভ্যতার সৃষ্টি নিয়,
যে সৃষ্টি তৈরিতে ক্ষয় কতো দিন-মজুরের রক্ত।
ওসব পড়েনা চোখে;
কেবল উঁচু-উঁচু ইমারত,প্লে গ্রাউন্ড,পার্ক শপিংমল;
ওসব তোমাদের স্বর্গ-রাজ্য;
তোমরা সভ্য জাতির দল।  


তোমাদের রাজ্যে যখন রাত হয় রঙিনতর;
তখন রাতের জ্যোৎস্না লুটোপুটি খায়
দিন-মজুরের কপাট বিহীন জানালায়।
খাবার জন্য ওদের দু'বেলা অন্ন জোটে না পাতে;
সে রাতে দামি সিগারেট,মদের গ্লাস
দোলখায় তোমাদের সভ্য জাতির হাতে।
ওদের পোশাকে কেবল দারিদ্রতার ছাপ;
দামি কোট-প্যান্ট,পারফিউম,সানগ্লাস,
তোমাদের শরীরজুড়ে কেবল পশ্চিমার ছাপ।


               এদিকে শিশুটি কেঁদে চলছে
               ভীষণ ক্ষুধার জ্বালায়,
               অন্নবিনে মায়ের বুক
               কাঠের মতো শুকায়।
দিন-রাত যারা এক করে
তোমাদের অন্ন জেগায়,  
সে অন্ন জোটেনা তাদের
কপালের লেখা হায়।


              তোমাদের ঘরে তোসামোদ করে
                খাওয়াও যাদের রোজ,
               তাদের ঘরে কেবলই চলে
                নিত্যনতুন ভোজ।
সেই অন্নের ধ্বংস সাধনে
তৃপ্তির ঢেকুর তোলো,
তোমরা নাকি সভ্য জাতি
কোন মুখে যে বলো?