শত মানুষের প্রাণ! ঘটনা হলে মৃত্যু!
শিরোনাম কি শুধুই যথেষ্ট!
কেন নয়,
ঘটনার আগে একটু হুঁশিয়ার, কিংবা সতর্ক।
এত মানুষের কান্নার ভিড়, হৃদয় দুর্বল, মর্মাহত করলো।
বিপদ!
কপালের লিখন, নিয়তি, মানুষ কি করে বদলাবে ভাগ্যের লিখন!
ঘটনার সূত্র প্রকাশ মাত্র, মৃত্যু সকলের অনিবার্য!
শুধু করো অপেক্ষা, সময় টা কখন, হবে একটা নতুন ঘটনা। আজ আমার মৃত্যু!


বাবা মা কাঁদবে,"স্মৃতি আঁকড়ে" বুকের মানিক কোথায় গেলি! চোখে অশ্রু ভেজা কণ্ঠে চিৎকার করবে, ফিরে আয়, আয় ফিরে আয়, আমার মানিক।
আত্মীয় স্বজন বলবে সবে, এই তো সেদিন কথা হলো, হঠাৎ করে যে কি হলো মৃত্যু তার লেখা ছিলো!
বন্ধুর চোখ, হয়ে আছে লাল টুকটুকে, অশ্রু যেন গড়িয়ে আমায় কিছু বলছে।
বন্ধু ফুঁপিয়ে ফুঁপিয়ে মরছে মনে, বন্ধু আমার হারিয়ে গেলো মৃত্যুর সাথে!
এমন কেনো হলো, কতই বা বয়স ছিলো, মৃত্যু ছোঁয়ার চাদর পড়লো আমার বন্ধুর দেহে।
নির্মম, নিয়তির নিয়ম, জীবন ঘড়ির কাটা থেমে গেলো, আমি তাঁহার কাছে জমা, রুহু নামের আত্মা। মৃত্যু হলো আজ আমার কপালের লিখন।