বাতাস আপন মনে বয়ে চলে যায়
নন্দিনী তুমি হঠাৎ করে শরীরে জড়িয়ে নিলে সেই বাতাস,
সে তোমায় ফাঁকি দিয়ে করে দিতে পারে নিরাশ!


পুকুর পাড়ের ঐ গাছে রক্তজবা ফুঁটেছে
নন্দিনী তুমি সেই রক্তজবা চুলের খোঁপাই গেঁথে নিলে,
সুযোগ বুঝে সে রক্তজবা তোমায় যাবে ফেলে!


কোন এক শীতের কুয়াশার জল
তোমায় আলতো ভিজিয়ে নির্মল কোমলতা দিতে পারে,
জেনে রেখো সে রবে স্বল্পকাল তোমার দুয়ারে!


আমায় যদি সুযোগ দাও তাদের দলে
নন্দিনী বিশ্বাস করো পাহাড় সমান ভালোবাসবো তোমায়,
ধরে রাখবো আমার হৃদয়ের শীর্ষ কৃষ্ণচূড়ায়!