চারিদিকে সুনসান, পূর্ণিমারাত!
নবনীত হাতে রাখি কম্পিত হাত।
হরিণীডাগর চোখে
চেয়ে রও অপলকে
কিছুই বলোনি মুখে
সরাওনি হাত।
চারিদিকে সুনসান, পূর্ণিমারাত।


থরথর কেঁপে উঠে শীতল শরীর,
বাতাসে যেমন কাঁপে পুকুরের নীর।
কারো মুখে নেই কথা
শঙ্কিত ব্যাকুলতা
নেমে আসে নীরবতা
ধীর ও অধীর।
থরথর কেঁপে উঠে শীতল শরীর।


আকাশে চাঁদের আলো খুবই মনোরম!
ধীরে ধীরে কেটে যায় সকল শরম।
মেঘের আড়াল থেকে
নেমে এসে এঁকেবেঁকে
অতঃপর, দিলে মেখে
সোহাগ চরম।
আকাশে চাঁদের আলো খুবই মনোরম!


প্রেমময় জগতী গো, তুমি যে প্রিয়তি!
গভীর আঁধার রাতে অরুণ তপতী।
তোমাকে কামনা করে
জীবনের সরোবরে
ফিরে আসি বারেবারে
জানাই আরতি।
প্রেমময় জগতী গো, তুমি যে প্রিয়তি।


০১/০৭/২০১৯
মিরপুর, ঢাকা।