আমি সব খুঁজেছি খোঁজার মত ছিল যা
প্রকৃতি আমায় খুঁজে দিল কিছু লাল সাদা জবা
পরাজিত সব পৃথিবীর সুন্দর,ফুল পাখি আর স্বর্গের অপ্সরা
আমি পাগল পাগল প্রায়,আমার মন হেরেছে বিপুলভাবে যা
দেখে তোমার নুপুর পরা আলতা রাঙা পা।

শরতের শিশির আমার মন করেছে অধীর
শিউলিতলে তোমার দেখা কই
শহর ছেড়ে হাঁটি গায়ে গ্রাম বাংলার মাটি
ভোরের চোখে মেঘের হৈচৈ।

আমি সন্ধ্যা সেজে আসি তোমার মনে জ্বালতে বাতি
ঠাকুর ঘরে ফুলের সুভাষ হই
আমার ঘুমের ঘরে তুমি যেন স্বর্ণ হিরের খনি
মায়ের কাছে আবোল তাবোল কই।

তুমি বন ছাড়া এক পাখি তোমায় মনের খাঁচায় রাখি
পোষতে চাচ্ছি সারাজীবন ভর
তোমার পায়ের কাছে আমি ভোর হয় যামিনী
প্রেমের কাছে কথা জড়োসড়।

মুখে ফেলতে গেলে আঁখি মনের পায়ে বেড়ি
ঘাড় নেড়েছে প্রেমের ধ্রুপদী
তোমার বাজপাখি নয়ন আমার খুন করেছে মন
ভালোবাসা খেলছে ডিগবাজি।