নাকেতে নোলক তার
পায়েতে তাকে আলতা রাঙায়
দেখেছি প্রথমবার।
মুক্ত বেণীর মাঝে–
বকুল গুঁজে, নীল শাড়িতে,
ভীষণ ছিলো সাজে।
দেখেছি একা একা।
সামিন দিয়ে চলতে পথে
এক ঝলকেরই দেখা।
কোথা যায়, জানি না।
তবু দেখে– মনে হলো,
সাধারণ। রানী না।
মনের ঘরেতে সে...
কি পরিচয়? কি নাম তার?
কোন বা ঘরের মে?
ঠিকানা আনো না!
হৃদয় ঘরের সাগর মাঝে
তোমরা জানো না
ডুবেছে মন তরী।


উথাল পাতাল ঢেউয়ে তাই
ভীষণ ডরি ডরি।