এই পৌষের সন্ধ্যায় শীত আসে কুয়াশা হয়ে
সূর্যের লাল দরবার মিয়িয়ে যায় বকের পালের ডানায়
নীরব নদীতে ধরনী ওঠে গুঞ্জরিয়ে
বেলার আয়ু কমে পৌষের নিঝুম সন্ধ্যায়
তুমি-আমি লেপ কাঁথায় গড়াগড়ি
তাল-খেজুরের রসের গুড়ে শালিক ছানা চোর
তিনটে হাস বিশখালীর জলে কাটে সাতার
স্রোতের নিমন্ত্রণ ফেলে ফেরে নীড়ে
ঘুঘুর দল ধান শালিকের মাঠে প্রান্তরে
ম্রিয়মান আলোয় গুচ্ছগ্রাম ছাড়িয়ে চলে মৃত ধানসিড়ির কোলে
এক দুই তিন
মুয়াজ্জিনের আজান প্রান্তরে বাজে প্রতিধ্বনি হয়ে
তুলসী গাছের নীচে সান্ধ্য আলোয়
পৃথিবীর রং প্রস্ফুটিত হয় লাল টকটকে সিঁদুরে
একটি কাক উড়ে যায় মগডালে
সন্ধ্যা আসে সন্ধ্যা হয়ে
পৌষের কুয়াশায় নিশিরে
আবছায়া অলিন্দের চৌপায়ায়।