বাকহীনতায় ভোগছে মানুষ, পায় না স্বাধীনতা,
মুখ ফোটে আজ যায়না বলা ন্যায্য নীতি কথা।
দূর্নীতিবাজ, খুনি দ্বারা দেশটা গেছে ভরে।
বঙ্গবন্ধু ভুল করেছে স্বাধীন বাংলা গড়ে?
জানতো যদি দাঙ্গা হাঙ্গায় দেশটা যাবে ভেসে
সালাম, রফিক প্রাণ দিত না রাজপথেতে এসে।
ত্রিশ লক্ষ শহীদ মিলে দিয়েছে যে রবি,
সেথায় কেন খুঁজে পাবো ধ্বংসলীলার ছবি?
বীর করেছে দেশকে তাদের তাজা রক্ত দান,
যাবে কেন সেই দেশেতে নীরিহ লোকের প্রাণ?


স্বাধীন দেশের চিত্র তো ভাই এমন হওয়ার নয়।
মুখ ফোটিয়ে বললে কিছু জীবন যাওয়ার ভয়।
হত্যার পর হত্যা হবে বলা যাবে না কথা।
চুপকরে কি থাকতে পারি বুকে চেপে ব্যাথা?


তার পরেতেও নিরব ছিলাম শান্তি-সুখের আশায়।
হঠাৎ করে জ্বললো আগুন সেই সুখেরই বাসায়।
দগ্ধ হৃদয় খুঁজে বেড়ায় স্বাধীনতা কোথায়?
তার সন্ধান পেলাম আজি শর্তযুক্ত পাতায়।
স্বাধীনতা পাবে তুমি নিরব যদি থাকো।
ভুল করেও কোনো সময় ন্যায্য বলো নাকো।
অন্যায় দেখে চোখ দুটোকে আড়াল করে নিও।
মুখোশদারি লোক দেখিলেই হাতে তালি দিও।
এসব শর্ত মানতে পারলে পাবে স্বাধীনতা।
তা নাহলে এই চেষ্টা যাবে তোমার বৃথা।


স্বাধীনতা চাই যে আমি কোনো শর্ত নয়।
থাকবো স্বাধীন করবো সবি কিসের এতো ভয়?
স্বাধীন দেশে জন্মে যদি না পাই স্বাধীনতা,
চাই যে আমি চলে যেতে আবরার গেছে যেথা।