আদুল গায়ে রাখাল ছেলে
মেঠোপথের বাঁকটি ধরে,  
সারি-সরি গরু নিয়ে
যাই সুদূরে তেপান্তরে।


শস্যে ভরা সবুজ মাঠে
মরা নদীর বালুচরে,
জংলী ঘাসের ছাউনি দিয়ে
ইচ্ছেমতো কুঠির গড়ে।


নাও ভাসিয়ে বিলের জলে
বাদাম তুলে তীরের বেগে,
শাপলার খোঁজে সীমা ছেড়ে
মন নাচে রূপালী মেঘে।


ফিঙে নাচে মনের সুখে  
নুইয়ে পড়া পাকা ধানে
মৃদু হাওয়া বহে ধীরে
রাখাল মাতে বাউল গানে।


সাঁজের বেলা গরু নিয়ে
রাখাল ছেলে আসে দ্বারে,  
শিশিরসিক্ত আলোক রশ্মি
প্রতি প্রাতে ডাকে তারে।  


25/03/2020.