অনুরাগের বিধুর ছায়া
চোখের তারায় ফুটলো রে
মনের কলির নিঝুম ছোঁয়ায়
বাঁধার আগল ভাঙলো রে।


মন মহুয়ার মদির সুধায়
নেশার কী ঘোর লাগলো রে
হাজার প্রজাপতি যেন
পাখনা মেলে উড়লো রে।


মনোলোভা তনুর সাজে
আবেশে মন ভরলো রে
মুক্ত আঁখির স্নিগ্ধ মায়ায়
ভীরু হিয়া টললো রে।


আঁখি তারায় ইন্দ্রধনুর
যে তীর ছিল টান করে
তার আঘাতে বিঁধলো বিহগ
সেই নয়ন সরোবরে।


আড় নয়নে ঝলক হেনে
কী বান জানি ছুঁড়লো রে
ঝিম ধরানি আলোর ছটায়
কোন সে জাদু করলো রে।


ঘুরছে ভুবন ঘামছে তনু
মোহের চুম্বক টানছে রে
অভ্র মণির ঝলকানীতে
যাবে বুঝি তার ছিঁড়ে!


ধনুক ত্যাগী শর বিঁধেছে
আন-হৃদয়কে ভেদ করে
কদম কেয়ার গন্ধ লোভে
অলি ছুটে আসলো রে।


মন বসন্তের সেই ফোটা ফুল
অকাল বেলায় জুটতে রে
কণক আভায় লুব্ধ তনু
হৃদয় ছেনে লুটতে রে।