স্বপ্নে মোড়া ছিরি-ছাদের
মিহি ভাবনাতে
নয়ন জুড়ে কী ঘোর ছিল
ভুলের ছবিটাতে।
পত্র-পল্লব যদি ঢাকা পড়ে
অবিশ্বাসী ছায়ায়
নীলাকাশ তবে জেগে রবে
কোন সুদিনের আশায়?


আসতে যেতে সকাল প্রাতে
জোনাক ফোটা রাতে
নৈঃশব্দ্যতার তুমুল ছায়ার
বিষম অভিঘাতে
কোন সে মায়া কী সে ছায়া
ফুটতো প্রতিভাসে
আকুল এই মন উঠতো কেঁদে
নিগূঢ় অভিলাষে।


আসা-যাওয়ার সেই সে মাঝে
কী দূরত্ব ছিলো
কিসের দোলায় মন বাতায়ন
হতো এলোমেলো?
ভয়-দ্বিধা সব করিনি জয়,
করতে বরণ তাকে
রাখিনি স্মরণ ও'চেনা চরণ,
হারিয়ে যা গেছে বাঁকে।


আঁখিতারায় ঝিলিক মিলিক
কুল ভাসানো ঢেউ
মনের কপাট মিছেই খোলা
আর আসে না কেউ!
এক দিঘীতে সন্তরণীর
যুগল মিথুন জুটি
কে জানে তা কেমন শাপে
কোন সে বিধির বিধান দিতে
বাঁধন গেল টুটি!