বেদনায় জর্জরিত হারিয়েছ সুখ
শিকল-ভাঙার গান তবু উচ্চারিত
বৈষম্যের জাঁতাকলে আরো উদ্দীপিত।
বিদ্রোহ-আগুন রক্তে, নিপীড়িত মূক
গুমরি গুমরি কাঁদে, মুছাবে কে দুঃখ।
অজেয় সেনানী তুমি নহে কভু ভীত,
বলো-না আজিকে কবি দ্বারে উপনীত
উত্তরের প্রতীক্ষায় রয়েছি উন্মুখ।


কবিকুল কী না পারে শানিত লেখনী
হাজার অসির চেয়ে বেশি ক্ষুরধার
উঠুক আবার বেজে সেই বজ্রধ্বনি
কম্পনে সকল বিঘ্ন হবে চুরমার।
নীলকণ্ঠ হলে তুমি গাহি সাম্য-গান
অমৃতের সুধাভাণ্ড আগামীকে দান।


(জন্মদিনে কবিকে  জানাই আমার বিনম্র শ্রদ্ধা)