পূর্ণিমায় বিধুমুখী ভাতিছে গগনে
এসো প্রেমের ঠাকুর অশান্ত এ ভবে
বিভেদ-বিদ্বেষ তবে দূরীভূত হবে।
দিগদর্শী মহাপ্রভু জানে সর্বজনে
উদ্বাহু অপূর্ব মূর্তি হেরি ক্ষণে ক্ষণে।
মনুষ্যসমাজ আজ দেখে শিক্ষা লবে
জীবন যন্ত্রণা যত সহিছে নীরবে
ঘুচবে সকল ব্যথা তব আগমনে।


ভগবান অবতীর্ণ ভবে যুগে যুগে
নররূপী অবতার জীবের কল্যাণে
বুদ্ধ-যিশু-মহম্মদ প্রভু শ্রীচৈতন্য।
উদ্ভ্রান্ত বিশ্ববাসী মেতেছে হুজুগে
স্বার্থান্বেষী অর্থগৃধ্নু সত্য নাহি জানে
কে দেবে প্রেমের বাণী চৈতন্য অনন্য।