রাস্তা ফুরিয়ে যাওয়ার বাঁকে,
ওই চলে গেলো ওরা!
নীরবে কত ছবি দিলো এঁকে
দু চোখের শ্রাবণ ধারা!


হেরে যাওয়া মৌন-কলরবে
তুমি তো উদাসী ভয় !
এ যেন ভাঙনের স্মৃতির শবে
ভরে থাকা শূন্য জয়!


বাতায়নে বসে একা অলক্ষ্যে,
নীরব আমি ছন্দ হীনা!
অনুভব গাঁথা গীতি আলেখ্যে,
তুমিই শেষ মুগ্ধ  বীণা!


নির্জন যখন আপন মহিমায়,
মৌন কলম অন্ধ অনন্তে ধায়!