এক অদ্ভুত আবহে যেন পৃথিবীতে বাঁচা      
শিয়রে সংকট,ঘৃণ্য দুর্বৃত্তর তীক্ষ্ণ-খোঁচা    
আলো-আঁধারের সীমানা-পাঁচিলের মতো    
বিশ্বাস-অবিশ্বাস সীমান্তে বিদ্বেষ জাগ্রত।
দুর্বৃত্ত-দলের হিংসার-বাষ্প থোকে থোকে,  
শয়তানের আরাধ্য-স্থানের দীপ-শিখাকে
উসকাতে ব্যস্ত।তাদের স্বার্থকে চরিতার্থ
করতে বিদ্বেষ বিষদের রয়েছে সামর্থ্য।
নিরীহ হৃদয়ে ক্ষত ছড়ায় বিদ্বেষ বিষে  
যেন অগ্নুৎপাত ছড়ায় সর্বত্র অনায়াসে।  
পৌঁছায় না দুর্বৃত্তদের হৃদয়ের অন্তঃস্থলে  
একেশ্বরের কণ্ঠস্বর,ডুবে মরে নদীজলে।    
চকিতে চমকায় নিরীহের বুকের পাঁজর
যেন কামার-শালায় হাঁপায় ক্লান্ত-হাঁপর।
দূতের ইশারা,চারিদিকে রণক্ষেত্র চেহারা
বেষ্টনী ছেড়ে ধরা জুড়ে বহে রক্তধারা।
মৈত্রীর পূজারীরা,উদ্ভ্রান্ত,বেদনায় সিঞ্চিত,      
উপেক্ষিত।দুর্বৃত্তদের রক্তচক্ষুতে অনাদৃত।