ঘোড়ার চাল   পাহাড় ঢাল    
    নিয়ত আঁকা বাঁকা
মনের মতি    দুখের স্মৃতি
    অন্তরে থাকে ঢাকা।
সময় কাল    গজের চাল
    সবই সোজা চলে  
দিনের শেষে   রজনী আসে
    সবাই সেটা বলে।
রেসের ঘোড়া   বিষের ফোঁড়া        
   বড়োই এক রোখা
মানীর মান    মারণ বান  
   দুটো ই বড়ো চোখা।
জীবন দীপ     প্রেম প্রদীপ
   করে গো মিট মিট
জীবের পেটে    চাষের ক্ষেতে
     থাকছে কত কীট।
রথের চাকা    সুখের দেখা      
     সদা গড়িয়ে চলে
অস্থির মন    সুদের ধন    
    নিয়ত ঢেউ তোলে।
মনের বল     শ্রমের ফল
   যায় নাকো বিফলে।
অবুঝ মন    বোঝে যখন
    সবই যায় জলে।
নদীর বান    যুদ্ধ কামান
    করে খুব গর্জন
মনের লন    গভীর বন
    সদা রহে নির্জন।            
ললাট লেখা   বাঘের দেখা  
   ঘটবে ছলে বলে
সেসব যদি    হয় গো বাদী
  জ্যোতিষী সেটা বলে।
সবাই বলে    লটারি পেলে  
   ভাগ্যের চাকা চলে
নতুন বন্ধু     সুখের সিন্ধু
   জুটে যায় কপালে।