যত দূর চোখ যায় দেখি শুধু-
তৃষ্ণার্ত মৃত নদী।
হাহাকার,কোথাও এক ফোঁটা জল নাই!


রঙিন চশমায় দেখা বেলা অবেলার স্বপ্ন গুলো
আজ ভাঙনের স্রোত দেখে;
নিয়মিত ভাবে ব্যঙ্গাত্মক উপহাস করে!


অপ্রাপ্তি আর অপূর্ণতা গুলো ঠাঁই পেয়েছে
পান্ডুলিপির মাঝে!
আশ্চর্য হয়ে উল্টে পাল্টে মুখ লুকিয়ে দেখি;
মুখে ঘৃণা, বিদ্রুপের হাসি।


আমার আতুর ঘরেই বোধহয় রোপন করেছে
বটবৃক্ষ!
এখন প্রায় জীর্ণশীর্ণ।
তবুও শেখড়ে ছেদ হয় মাটি।
কতকাল থাকবে হাতে এই দু:খ নামের লাঠি.?