জীবনের দৌঁড়ে আজ পারদের ওঠা-নামা ।
যেতে হবে বহুদূর ভালো কথা;বড় ভালো...
ট্রেডমার্কহীন নকুট্য ; অকাট্য  ট্রেসপাস
আত্মরক্ষার জন্য খুঁজি না  কোন ব্যতিক্রম;
পেনাল কোডের ব্যতিক্রমসমূহ !
যেখানে মারবারী বনাম মেডিসন বললেই উত্তেজিত হয় কবি
সেখানে দেশীয় আনোয়ার কিংবা
মাসদার হোসেন টেনে এনে কী লাভ!
লিডিং কিংবা ল্যান্ডমার্ক ডিসিশন তুলে ধরলেই -
আর কবি হওয়া যায় না ;আগুনের পাশে মোম  গলে না!
ভিপিএন সিকিউরিটি দিয়ে কী হবে?
কী হবে আইডেনটিটি কিংবা উদ্ভট প্রাইভেসি সেটিং করে?
চুম্বক-লোহার ধর্ম টেনে এনে কোন লাভ আছে কী?
না নেই; কোন লাভ নেই!
শরীরে চর্বি জমে গেছে কালো টাকার প্রভাবে,
ঠিক যেন তাড্যমান কোন ঘাটতি বাজেট!
অথচ কী আশ্চর্য দেখ-এখনও খুঁজি পাতাসি মাছের মতন শরীর,
শিমুলের তুলার মত ওজন;পাহাড়চূড়া,প্রবাহমান উপচে পড়া নদি।
ভর-বেগ যাই হোক না কেন?
হোক না সেটা গুণফলের ব্যাস্তানুপাতিক।
ছিনতাই হয়ে গেছে স্বপ্নটা;হাতরে বেড়াই ঘুটঘটে অন্ধকারে
অবশ্য এভিডেভিট করে রেখেছি-
ওষ্ঠবন্দি অলিখিত সেই  ডবকা শরীর।
কখনও যদি ডোপামিন নিঃসৃত হয়
মনে পড়ে-ঝড়ের সুরে কাজরি গান,
দাবানলে ছারখার হয় তব আমাজন বন,
কোমরের নিচে বিতর্কিত লাখেরাজ ভূমি।
তখন দেরি করো না-ছুঁটে এসো...
জানো?জিপির ’স্টে হোম’ আমার ভালো লাগে না।
আমি এখনও পূরক কোণে বিশ্বাসী;সম্পূরক না!
আকিষ্ণন ঠিক যেন চতুরস্য গলদঘর্ম;গম্ভীরা গানের মতন তেজস্বী।
জলবায়ু পরিবর্তনের খেলায় নাকি বরফও গলতে থাকে,
অক্ষাংশ-দ্রাঘিমাংশ কেঁপে ওঠে পর্নোগ্রাফির ঘুৎকারে।
কাঁন্না মিশে থাকে অসংখ্য;নষ্ট হয় সময়।
তারচেয়ে বরং ছুঁটে আসো-বাস্তবতার ইনবক্সে,
দৌঁড় শেখাও আমায়;জীবনের দৌঁড় ...
জানি  রহস্য- ঘেরা  দুটি চোখ তোমার; ফিরে আসবে না কখনও;তবুও...