খোকা,
তোর বয়েস আজ কতো
হলো রে…!


তুই কি জানিস,
তোর ছেলেরা আজও না
খেয়ে দিনমান খেটে
মরে গা-গতরে!


কাজটা শেষ না করেই তুই
বাংলা মায়েক ধোঁকা দিয়ে
অসময়ে চলে গেলি
চিরতরে !


তুই নেই খোকা,
তবু তোকে বুকে ধারণ করে তোর
সন্তানেরা ঘাতক-প্রেতাত্মা রোধে
আজও কতো কষ্ট করে!


শোন্ বাছা,
আবার কি ফিরে আসবি তুই
ভিনরূপে বাংলার অন্য
কোনো ঘরে ?


আবার কি দেখতে পাবো আমি
তোর উদ্যত অঙ্গুলি, শুনবো
সেই বজ্রকণ্ঠ-বাণী বাংলার
অন্য কোনো প্রান্তরে ?


খোকারে…,
তোর মতো খোকারা চাইলেই পারে
ফের জন্মাতে বঞ্চিত-নিপীড়িত
মানু্ষের ঘরে ঘরে!


আয় না রে বাছা আরেকবার,
শতবর্ষী হলেও তোকে আজ
আমার বড়ো বেশি
প্রয়োজনরে...!
#
১৭.০৩.২০২০
“মুজিব শতবর্ষ”