=================


নীলিমার নীচে সমুদ্রের পাশে
গাড়ীতে বসে সৈকতে
তোমার প্রতিচ্ছবি ভেসে উঠে আজ
হৃদ মাজারের আয়নাতে ।


যৌবনের সেই সবুজ দিনে
তোমার বুকে ভাসিয়ে ভেলা
মনের আনন্দে খেলেছি আমি
সকাল থেকে সন্ধ্যাবেলা ।


ভরা মৌসুমে দেখেছি আমি
তোমার গর্জন আর তোমার সুর
মাতাল হাওয়ায় ঢেউয়ের তালে
কানে বাজতো সু-মধুর ।


তোমার বুকে কেটেছি সাঁতার
তুলেছি কত শাপলা ফুল
সাঁঝের বেলা দখিনা হাওয়ায়
ধানের শীষে খেত দোল ।


মাঝি-মাল্লা পাল তুলে নায়
গাইতো সুরে ভাটিয়ালি গান
পাগল করা গানের সুরে
জুড়াতো মোদের দেহ-প্রাণ ।


শ্রাবণের অঝর বৃষ্টি ধারায়
আজও মনে পড়ে হে “বানাই হাওর”
তোমার মধুময় স্মৃতিকথা
কাব্যে সাজাই বসে তেপান্তর ।।


—————-//—————-


তারিখ :- ১৩ই অক্টোবর ; ২০১৮
       ব্লাইত ; নিউকাসল ।


(নোট:- আমাদের বাড়ি থেকে আধ মাইল দূরে
অবস্হিত হাওরটির নাম (বানাই হাওয়ার) ।
এই হাওরটি ছিল ভাটি অঞ্চলের প্রাণ ।
বর্ষা মৌসুমে হাওরটিকে সমুদ্রের মত দেখাতো ।)