ক্লেশে চিৎকার    ফাটে বারবার
       ওষ্ঠ সেলাই তবু
মিঠে রোদ্দুর       আজি বহুদূর
      চামড়া জ্বালায় প্রভু
ও যে মহামান      'বুঝে সম্মান'
       উচ্চ কণ্ঠে ফেরে
ও যে দগ্ধায়    তাও হেসে যায়
     জানিনা কেমন করে
নীলে ভেজা মন  করে জ্বালাতন
     জ্বলছে বিষের জালে
ঘুমে কাতরান   সাধু সাজা ভান
     নাচে সমাজের তালে
নিশি নির্মম       কেন এত ভ্রম
      বন্ধ করো ও রাধে
সকালের ঘুমে    অভ্যাস থামে
    চোখের বারোটা সাধে
কাঠির মাদুরে    মাটির দুয়ারে
      সানাই বসবে যবে
ওহে সুধীবর    ওই রাতে মোর
       শান্তি নিদ্রা হবে!