আমরা মানুষ খোদার রাজ্যে করিতেছি কত নাফরমানি,
তবুও নিয়ামত বিলিয়ে যাচ্ছেন, কত যে মেহেরবানী।


জীবনকে বাঁচাতে কত রকমের ফল আছে দুনিয়া জুড়ে,
খোদার তরে মানুষের জয়গান, রিজিক যাইবে বেড়ে।


প্রতিটি ঋতুতে নানা রকমের ফল, প্রভু দিয়েছেন উপহার
বলতো কোন একটি ফল তৈরি করার সাধ্য আছে কার।


সারা দিন রোজার পরে শরীরে আসে, হানিক দুর্বলতা
সহানুভূতিতে তখনই আসে, অনাহারী মানুষের কথা।


রোজায় মানুষকে এনে দেয়  সদায় আত্মার পবিত্রতা,
মুমিনের দিলে উপলব্ধি মিলে, বেহেশতের মধুরতা।


পৃথিবীতে অগুনিত নিয়ামত, শুধু ভাবুন পানির সফলতা,
এক গ্লাস জল, খেলেই সফল, না পেলে বিফলতা।


মহাবিশ্বের প্রতিপালক যিনি মানুষ করেছেন সৃষ্টি,
মোদের মঙ্গলে সর্বদাই তিনি, রাখিবেন সজাগ দৃষ্টি।


আমাদের প্রায়োজন খোদার কাছে চেয়ে করি যদি ভক্তি,
তাঁহার সদিচ্ছা লঙ্ঘন করিতে, পারিবে না কোনো শক্তি।


থাকবেনা মোদের আপদ বিপদ যত দুঃখ ক্লেশ,
দৈত্যের ন্যায় মহা প্রলয় নিমিষে হইবে শেষ।


খোদার হুকুমে সহনীয় পর্যায়ে থাকিবে প্রাকৃতিক দুর্যোগ,
অসহায় মানুষের জীবন চলায়, থাকিবেনা দুর্ভোগ।


আর কি উপায় আছে বলো, মহাপ্রভুর আশ্রয় ছাড়া,
মোদের ডাকে বিশ্ব ভ্রম্মান্ডের মালিক, নিশ্চয়ই দিবেন সাড়া।


                        --সমাপ্ত--
                    (রচনাকালঃ-১০/০৫/২০১৯)