শত আঘাত দিলে প্রাণে

আপন করে নিলে ওতে।

কে জানে গো কি সুখ তাতে

বারে বারে তোমার আঘাত করার ছলে।

আজ এসেছি শূন্য হাতে

সকল মোহো সুখ হেলায় ফেলে,

এবার তোমার প্রাণের সাথে মিলবো গোপনে।

পথের ধারে শঙ্কা যত দুঃখ রাতে বিজন স্রোতে

ছাড়নি হাত আমার প্রিয় নিয়েছি তোমায় চিনে।

মৃত্যু যখন কড়া নাড়ে শোক এসেছে সুখের পাচ্ছে

ছাড়নি মোরে শঙ্কা মাঝে একলা অসীম পানে।

ঝড় উঠেছে বৈশাখে আম্রকুঞ্জে শিরীষ শাখে

বজ্র খেলে কৃষ্ণ মেঘে বাজে মৃদঙ্গ সমীরে।

হাটে, বাটে, মাঠের মাঝে একলা করে যাও নি মোরে

দিনের প্রাতে বেচা কেনা হিসেব নিকেশ বিপুল আয়োজন।

সব বিকিয়ে এবার যখন শূন্য হলাম আমি

নিলে তুমি কাছে ডেকে, নিলে কিনে মোরে।