প্রেম বন্দনা শুনিয়ে আজকে আসর করলে মাত।
তুমি কি করেছ কখনও হিসেব?
কতজন কত ভীরের মাঝে নারীবক্ষে বাড়ায় হাত?
কত সীতা আজ নির্জনে কাঁদে ,
পড়িয়েছে কত রাবণের ফাঁদে।
বেহুঁশলগ্নে ডাকলে আমাকে শুনতে প্রেমের কবিতা
আজকে আমি সাজিয়েছি ডালি ভরি কাম আর যৌনতা।
বলি তবে রাখ শুনে
বাস্প হয়ে উড়ে গেছে প্রেম , কাম –প্রেম দ্রবণে।
যে মুখে বলে ভালবাসি তোমায়
সে স্নায়ু কাতর পশুত্ব ক্ষুধায়।
থাকে উৎপেতে মনুষ্য শশক সুযোগ পাইতে রতি
শুধু অরগ্যাজমেই প্রেম খুঁজে পায় –এই কামাতুর প্রগতি।
কোথায় সমাজ , কোথায় প্রাচীর কোথায় কার্য শাসন?
এরচেয়ে ঢের মজবুত অতি ডিমের খোসা, মাকড়শার জাল বাঁধন।
পরকীয়া আজ সুলভ অতি, এডভেঞ্চার প্রেমের নাম
শত ধিক তারে প্রেম বলে যে সে করে প্রেমেরই অপমান।

হটাত করে ক্ষেপে যাই যদি বহে হৃদয় সমুদ্রে তুফান
সারা দুনিয়ার তেল ঢেলে দিয়েও হয়না প্রলয়ের অবসান।
উগ্র আবেশে অস্থির এই মুখে যা আসে বলি
কুর্দনে আউড়িয়ে খিস্তি আমি আপন খেয়ালে চলি।