(একটি প্রণাম প্রচেষ্টা)


কি অলীক কুহক মেখে সন্ধ্যা নামিতেছে
ধীরে নিঝুম প্রান্তরে ;জড়াতেছে
বিস্তীর্ণ ধানের ক্ষেতে কুয়াশার ঘ্রাণ লয়ে
বিপুল বিস্ময়ে।


আকাশে ধবল বক সারি সারি উড়িতেছে
অপলক নক্ষত্রের দিকে।


বিস্তর ছুঁয়ে-ছেনে, হৃদয়ের সফেন সাগরে
যে নাবিক ছিঁড়িয়াছে পাল,
সবুজ অবুঝ ঘাসে যে হরিণ কস্তুরীর গন্ধ বুকে
ছুটে ছুটে  ফিরিয়াছে ঘরে---
অন্ধকারে,তারা দেখি বসে আছে হাঁটু মুড়ে
বিপন্ন বিষাদে, জোনাকির তরে ।
মিশর মরুর দেশে যেইসব পাখিগুলি
উড়ে গেল ভোরে,
ফিরিল কি সন্ধ্যায় নীলে স্নান সেরে?
বলো,রঞ্জাবতী,স্বর্গের অপ্সরা তুমি অম্বাবতী
পারিজাত ফুটিল কি কুমুদ- কহ্লারে
এই ধরনীর পিপাসার তীরে
তোমারি আদরে ?


জানি,সব ব্যথাগুলি জমা আছে সন্ধ্যা-জমা,
পেঁচা ডাকা গাছের কোটরে।


স্ব