কোথাও শান্তি নাই
✍উজ্জ্বল সরদার আর্য


ক্ষতবিক্ষত স্বদেশ আজ অন্ধকারে ঘেরা
শান্তি নাই, কোথাও শান্তি নাই!
ক্ষুধার্ত-দুর্বল জনতা হয়েছে সর্বহারা
মৃত্যুর প্রতিচ্ছবি দেখে ভয় পাই-ভয় পাই।
লোহিত রক্ত প্রতি মুহূর্তে ঝরছে
শোষিত-পীড়িত-ক্ষত শরীরে,
অকাল মরণের স্পন্দন হৃদয়ে এখন
ভুলেছি দ্রোহ-কলহ আছি লুকিয়ে ঘরে।


অন্যায়-অত্যাচার বাড়ি-মন্দির ভাঙচুর
করবি তোরা নির্যাতন আর কতদিন?
ওরা ধর্ম অন্ধ, বৃহৎ দলবদ্ধ, হিংস্র-ক্রুদ্ধ,
করে জাতি ভেদাভেদ-দ্বন্দ্ব বাধায় প্রতিদিন।
ওদের কি হয় না বিচার? নিকৃষ্ট ব্যবহার
করছে সংখ্যালঘুদের সাথে!
রাতের অন্ধকারে আগুনে পুড়িয়ে মারে
জনসম্মুখে হত্যা করে অস্ত্র হাতে।


সম্পদ করে লুট, দখল করছে জমি,
নিরীহ জনতাকে করে দেশ ছাড়া!
প্রতিদিন প্রতিক্ষণে অশ্রু দেখি নয়নে,
প্রিয়জন হারা বেদনা অন্ত পথে করে তাড়া।
ওরা রক্তপিপাসু-বনদস্যু, মায়াহীন-কঠিন
অন্তরে কেবল দম্ভ- অহংকার!
নারী হরণ, বস্ত্রহরণ, ধর্ষণ, অকাল মরণ
আপন করবো কত আর?


শান্তি নাই, স্বদেশে কোথাও শান্তি নাই!
স্বজন হারা, সম্পদ হারা, গৃহ হারা হয়ে
ধুলা পথে পড়ে বিদায়ের গান গেয়ে যাই।
তবু জাগে না জনতা করে না বিরোধিতা
ভিতু-দুর্বল ভয় করে কলহ-কোলাহল!
এমন ক্ষণে বিদ্রোহ বাঁশী বাজলো বনে
প্রতিজ্ঞা বদ্ধ দেবে অন্যায়ের দণ্ড
এসেছে যম দূত হয়ে একদল।



✍-উজ্জ্বল সরদার আর্য
রচনাকাল, ১৫ অক্টোবর ২০২০ সাল,
বাংলা- ২৯ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, বৃহস্পতিবার।
দাকোপ খুলনা,বাংলাদেশ।