নিদ্রাভঙ্গ
  ✍-উজ্জ্বল সরদার আর্য


বিষাদ পান্থ, পড়ে-পথে
        স্বজন-শূন্য!
অক্ষি তন্দ্রায়,অর্ক-অস্ত
        নিশি রাজ্য।
সহসা সর্বশুচি জঙ্গিরা-জ্বালে,
ভবন-ভস্ম’ দিচ্ছে ঘাতক-ঘাত।
মর্দিত-মা, ক্ষতবিক্ষত বক্ষ
         ঝরছে রক্ত!
রঞ্জিত-রাজপথ, নর-নিপাত
          শোকতপ্ত।
দুর্ভিক্ষ-দুনিয়া, বায়ুতে বিকৃত
             দুর্গন্ধ!
জনশূন্য দেশ,মাংসাশী শিকারির
        শুধু আনাগোনা।
অন্ধকারে-অবরুদ্ধ লক্ষ ভ্রষ্ট মার্গ
          নির্বীজ জনতার,
চতুর্দিক হাহাকার-- বোমা-বিস্ফোরণে
           সব ছারখার।
    কৃষ্ণ ধূম কুণ্ডলী পাকিয়ে
          অন্তরীক্ষ জুড়ে,
      অন্তর কাঁপছে থর্-থর্
     যাচ্ছে সব পাবকে পুড়ে।
    রজনী শেষে প্রভাত হেসে
            আসবে কি?
  পক্ষী-পলাতক,পুষ্প-পরলোক,
      শস্য-ভস্ম বীরকে ডাকি।
     কিন্তু আজ হয়েছে নিদ্রাভঙ্গ
        বুঝেছি ভুল আমি,
   জাগ্রত-জনতা সকলে একতা
নির্ভীক যোদ্ধা স্বাধীন করবে ভূমি।
      রক্ত দানে মুক্তির গানে
         ভেঙেছে সব দ্বার,
  আমি তৈরি ধরেছি তরবারি
       করবো শত্রু সংহার।


✍-উজ্জ্বল সরদার আর্য
রচনাকাল ২১ নভেম্বর ২০১৮ সাল,
বাংলা ৪ অগ্রহায়ন ১৪২৫ বঙ্গাব্দ
বুধবার দুপুর ১২ টা
দাকোপ খুলনা,বাংলাদেশ। ★*