নারীর কষ্টে সাগর কাঁদে
কাঁদে পাহাড় নদী
দিবানিশি পাখি কাঁদে
কাদে নিরবধি।  


ডুকরে ডুকরে ঘুঘু কাঁদে
ভরদুপুরে ওরে
কিচিরমিচির শালিক কেঁদে  
গাছের ডালে ওড়ে।


আকাশ কাঁদে গুমরে গুমরে  
নারীর কষ্টের জন্য  
মেঘ কাঁদে বৃষ্টি হয়ে
কান্না ধোবার জন্য।


গাছ কাঁদে নারীর দুঃখে  
পাতা ও তার জন্য
ফুল কাঁদে দুঃখে তাদের
দুঃখ ভোলার জন্য।


পুকুর কাঁদে নারীর ব্যাথায়
মন টা ভীষন ভারী
পারতো যদি ধুয়ে দিতে
সুখ টা পেতো নারী।


কলমী ফুল আর শাপলা মিলে
করছে আহাজারি
বকুল ফুল আর বেলী মিলে
করছে নারী নারী।


পাথর কাঁদে নারীর কষ্টে
নারীর দুঃখে মরি
বাতাস কাদে তার ই জন্য
বাতাস যে হয় ভারী।


বুঝলো সবে নারীর কষ্ট
নারীর দুঃখ ব্যাথা
বুঝলো নারে মানুষ কেবল
মানুষ বলে কথা।


আসুন সবে একটু বুঝি
নারী কারো বোন
না হয় নারী মা যে আমার
আবার চাচী মোর।    


কখনো সে ভাবি আমার
কখনো সে খালা
আবার সে যে ফুফু আমার
আবার কারো মালা।


তাই যদি হয় ভাবনা মোদের
সত্যি নারীর জন্য
দূর করি দাও সকল আধার
আধার তারই জন্য।    
  
বাংলো
জেলা ও দায়রা জজ
সুনামগঞ্জ
২০-০৫-২০২০